Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৭-১৫-২০১৭

অবশেষে আটক হলেন বিয়ের তিনদিনের মাথায় স্বামীর 'পুরুষাঙ্গ'' কেটে দেয়া সেই নববধু !   

অবশেষে আটক হলেন বিয়ের তিনদিনের মাথায় স্বামীর 'পুরুষাঙ্গ'' কেটে দেয়া সেই নববধু !   

লালমনিরহাট, ১৫ জুলাই- লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় বিয়ের ৩ দিনের মাথায় স্বামী নুর কুতুব সুজন (২২) এর পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়ার অপরাধে আরফিনা আক্তার (১৮) নামের এক নববধুকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।  শুক্রবার (১৪ জুলাই) পলাশী ইউপি কার্যালয় থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, গত মঙ্গলবার (১১ জুলাই) দুপুরে আদিতমারী উপজেলার পলাশী ইউনিয়নের মদনপুর গ্রামে জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে নুর কুতুব সুজনের (২২) পুরুষাঙ্গ দা দিয়ে কেটে দেন তারই নববধূ আরফিনা আক্তার (১৮)।

আরফিনা আক্তার হাতীবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের কাছিমবাজার গ্রামের ভ্যানচালক আশরাফুল ইসলামের মেয়ে।

সুজনের সাথে রবিবার (৯ জুলাই) আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে হয় আরফিনার।  ওই রাতেই নববধুকে নিয়ে সুজন তার বাড়িতে চলে আসেন।

মঙ্গলবার (১১ জুলাই) দুপুরে স্বামী-স্ত্রী মাঝে মনমালিন্যের এক পর্যায়ে নববধূ আরফিনা দা দিয়ে স্বামী সুজনের পুরুষাঙ্গে আঘাত করে।  মুমূর্ষ অবস্থায় সুজনকে প্রথমে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে নেয়া হলে সেখান থেকে রংপুরে প্রেরণ করা হয়েছে।  

বর্তমানে সুজন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৫ নং কেবিনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।  তার পুরুষাঙ্গের রগ কেটে যাওয়ায় ২৪টি সেলাই দেয়া হয়েছে বলে তার চাচা দুলাল মিয়া সাংবাদিকদের জানান।

এদিকে খবর পেয়ে সুজনের বাড়িতে ছুটে যান উপজেলার পলাশী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শওকত আলী ও তার লোকজন।  এদিকে মেয়ের বাড়িতে মঙ্গলবার দুপুরে মেয়ের বাবা ও মা চলেন আসেন।  এরপর চেয়ারম্যান এক শালিস বৈঠকে মেয়ের পরিবারের আপোষ নামায় জরিমানা এক লক্ষ ৫০ হাজার টাকা নির্ধারন করেন।  

এ টাকার জন্য মেয়ে আরফিনা ও তার বাবা আশরাফুলকে আটক রাখা হয়।  আর টাকা নিয়ে আসার জন্য মেয়ের মাকে গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয়। টাকা নিয়ে না আসা পর্যন্ত তাদেরকে ছেলে সুজনের বাড়িতেই আটক রাখা হয়।  তাদের পাহাড়ার জন্য রাখা হয় দু’জন গ্রাম পুলিশ।

এদিকে জরিমানার টাকা তিনদিন পার হয়ে গেলেও দিতে না পারায় বৃহস্পতিবার রাতেই মেয়ের বাবা ও মেয়েকে ছেলের বাড়ি থেকে নিয়ে এসে পলাশী ইউনিয়ন পষিদ কার্যালয়ে রাতভর আটকে রাখা হয়।  অবশেষে পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপে আদিতমারী থানা পুলিশ শুক্রবার (১৪ জুলাই) পলাশী ইউপি কার্যালয় থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এদিকে স্বামী সুজনের পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়ার ঘটনায় শুক্রবার রাতে আদিতমারী থানায় নববধু আরফিন আক্তারের নামে ছেলের বাবা জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করে।  মামলা নং-১৩,তারিখ  ১৪/০৭/২০১৭ইং।  এ মামলায় নববধূকে থানা হাজতে আটক রয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আয়ু) আদিতমারী থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) সুমন পাল সাংবাদিককে জানান, মামলায় নববধু আরফিনা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তার নিজের দোষ স্বীকার করেছে।

আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ এর দায়িত্বে (ওসি তদন্ত) মাহফুজ আলম জানান নববধু আরফিনা ও তার বাবাকে পলাশী ইউপি কার্যালয় থেকে উদ্ধার করা হয়েছে এবং থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।  শনিবার আরফিনাকে জেলহাজতে প্রেরন করা হবে।

আর/১৭:১৪/১৫ জুলাই

লালমনিরহাট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে