Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ৫ জুন, ২০২০ , ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গড় রেটিং: 2.8/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-০২-২০১৩

প্রতিষ্ঠানে ট্রেড না থাকলেও শিক্ষককের বেতন ঠিকই তোলা হচ্ছে


	প্রতিষ্ঠানে ট্রেড না থাকলেও শিক্ষককের বেতন ঠিকই তোলা হচ্ছে

নাটোর, ০২ অক্টোবর- নাটোরের সিংড়া কালিগঞ্জ কারিগরী স্কুল ও কলেজের কম্পিউটার ট্রেড এর অনুমতি না থাকলেও ওই ট্রেডের ট্রেড ইন্সট্রাক্টর ও ল্যাব এসিস্ট্যান্ট পদে নিয়মিত বেতন-ভাতা তুলে সরকারি সুযোগ সুবিধা ভোগ করছেন। ওই দুই শিক্ষক ২০০২ সালে নিয়োগ পেয়ে স্কুলে নিয়মিতভাবে অনুপস্থিত থেকে বেতন-ভাতা উত্তোলন করছেন। ওই প্রতিষ্ঠানের সুপারের স্ত্রী সীমা বানু কম্পিউটার ট্রেড ইন্সট্রাক্টর ও শাহাদৎ হোসেন নামে অন্য একজনকে ল্যাব এসিস্ট্যান্ট পদে সরকারি বিধি বহির্ভূতভাবে নিয়োগ দেয়া হয়। সীমা বানু ইনডেক্স নং ১০০৪৩২০, শাহাদৎ হোসেন এর ইনডেক্স নং ১০০৪০২৬।  ম্যানেজিং কমিটিকে ম্যানেজ করে বিগত প্রায় নয় বছর থেকে অবৈধভাবে বেতন-ভাতা উত্তোলন করে আসছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ হারুন তাদের বেতন বন্ধ করে দেয় এবং সরকারী কোষাগারে টাকা জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হলেও তা মানা হয়নি। স্থানীয়রা জানিয়েছে, প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটিকে পকেট কমিটি করে অধ্যক্ষ নিজেই এই দূর্ণীতিতে জড়িয়ে পরেন। এ ব্যাপারে কালিগঞ্জ কারিগরী স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ মুকুল হোসেন কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মুসা হক আলী বলেন, বিষয়টি তিনি জানেন না। এর আগের উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ হারুন ওই দুজন শিক্ষকের বেতন বন্ধ করে দিয়েছিলেন কিন্তু কিভাবে তা আবার চালু হলো তা তার জানা নেই। এ ব্যাপারে বর্তমান উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুর রহমান খান বলেন, বিষয়টি তার জানা নেই তাই খোঁজ নিতে হবে।

নাটোর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে