Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ৭ এপ্রিল, ২০২০ , ২৪ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১২-০৯-২০১৯

দুপুরে ভোরের আকাশ, বায়ুদূষণ নাকি কুয়াশা

সঞ্চিতা সীতু


দুপুরে ভোরের আকাশ, বায়ুদূষণ নাকি কুয়াশা

ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর- ঘড়ির কাঁটায় দুপুর ১২টা। সাধারণত এই সময় সূর্য মধ্য আকাশে থাকার কথা। অথচ  ঢাকার আকাশ দেখে মনে হচ্ছে ভোর হয়েছে কিছুক্ষণ আগেই। বাইরে দেখে বোঝার উপায় নেই বেলা গড়িয়ে দ্বিপ্রহর। চারপাশে কুয়াশা কুয়াশা একটা আবহ। আবহাওয়া অধিদফতর এটিকে কুয়াশা বললেও এটি আসলে বায়ুদূষণের ফল। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বিশ্বের বায়ুমান যাচাই বিষয়ক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ‘এয়ার ভিজ্যুয়াল’ এর বায়ুমান সূচক (একিউআই) সোমবার (৯ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঢাকা ছিল বিশ্বের তৃতীয় বায়ুদূষণের শহর। দুপুর ১২টার পর থেকে ৬ষ্ঠ স্থানে নেমে আসে ঢাকা।

কুয়াশা নাকি বায়ুদূষণ—এ বিষয়ে জানতে চাইলে বায়ুদূষণ বিশেষজ্ঞ ও বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) যুগ্ম সম্পাদক অধ্যাপক ড. কামরুজ্জামান মজুমদার এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘কুয়াশা কিছুটা থাকলেও এখন আকাশের যে পরিস্থিতি, তার জন্য দায়ী বায়ুদূষণ। এদিক দিয়ে আজ (সোমবার) সকালে ঢাকা তৃতীয় অবস্থানে ছিল। তখন ঢাকার বায়ুর মান সূচক ছিল ২৪৪, যা মারাত্মক অস্বাস্থ্যকর। দুপুর ১২টার পর তা কিছুটা কমে এখন সূচক দাঁড়িয়েছে ১৯৪-এ। এটিও খুব ভালো নয়, অস্বাস্থ্যকর।’

তিনি বলেন, ‘বারবার বলার পর কয়েকদিন রাস্তায় রাস্তায় পানি দেওয়ায় দূষণ কিছুটা কমেছিল। কিন্তু আজ আবার সেটা বেড়ে চরম আকার ধারণ করেছে। এটি থেকে প্রতিকার পেতে হলে পানি ঢালা বন্ধ করা যাবে না।’   

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ছয় ধরনের পদার্থ এবং গ্যাসের কারণে ঢাকায় দূষণের মাত্রা সম্প্রতি অনেক বেড়ে গেছে। এরমধ্যে ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ধূলিকণা অর্থাৎ পিএম ২.৫ এর কারণেই ঢাকায় দূষণ অতিমাত্রায় বেড়ে গেলেই পরিস্থিতি নাজুক হয়ে উঠছে।


কুয়াশার বিষয়ে আবহাওয়া অফিস বলছে, শীত মৌসুম শুরু। তাই দেশের অনেক এলাকার মতো ঢাকায়ও কুয়াশা পড়তে শুরু করেছে। আর বায়ুদূষণ বিষয়ক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কুয়াশার সঙ্গে বাতাসের ধুলা মিশে তৈরি হয়েছে আজকের এই পরিস্থিতি।

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস জানান, শীত মৌসুমে কুয়াশা পড়া স্বাভাবিক।

এত বেলায় কুয়াশা পড়ছে কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা শীতের কারণেই হচ্ছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কেটে যাবে কুয়াশা।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছেন, আজ দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায় ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া ঢাকা বিভাগে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কিশোরগঞ্জের নিকলিতে ১৫ ডিগ্রি, ময়মনসিংহ বিভাগের নেত্রকোনায় ১৫.৩ ডিগ্রি, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ১৫ ডিগ্রি, সিলেটের শ্রীমঙ্গলে ১২.৬ ডিগ্রি, রাজশাহীর বদলগাছিতে ১৩.২ ডিগ্রি, খুলনা বিভাগের মধ্যে যশোরে ১৬ ডিগ্রি এবং বরিশালে ১৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


এদিকে আবহাওয়ার দীর্ঘমেয়াদি পূবাভাসে বলা হয়, ডিসেম্বরে বাংলাদেশে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত হতে পারে। এ মাসে বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে যা নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে। এ মাসের প্রথমার্ধে রাতের তাপমাত্রা স্বাভাবিক অপেক্ষা বেশি থাকতে পারে। মাসের শেষার্ধে রাতের তাপমাত্রা স্বাভাবিক অপেক্ষা কম থাকতে পারে।

ডিসেম্বরের শেষার্ধে দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে ১-২টি মৃদু অথবা মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। এছাড়া দেশের উত্তরাঞ্চল ও নদ-নদী অববাহিকায় ঘন বা মাঝারি কুয়াশা এবং দেশের অন্যত্র মাঝারি বা হালকা কুয়াশা পড়তে পারে।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

আর/০৮:১৪/০৯ ডিসেম্বর

পরিবেশ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে