Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১ এপ্রিল, ২০২০ , ১৮ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-০৮-২০২০

বিনিয়োগে নিরাপদ সাত খাত

বিনিয়োগে নিরাপদ সাত খাত

ঢাকা, ০৮ ফেব্রুয়ারি - বড় ধরনের দরপতনের কবলে পড়ে দেশের শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেশ কমে গেছে। অবমূল্যায়িত অবস্থায় পড়ে রয়েছে ভালো অনেক প্রতিষ্ঠানের শেয়ার। এ পরিস্থিতিতে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে নিরাপদ অবস্থায় রয়েছে সাতটি খাতের বেশিরভাগ কোম্পানি।

শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ঝুঁকি মূল্যায়নের অন্যতম হাতিয়ার মূল্য আয় অনুপাত (পিই রেশিও)। যে প্রতিষ্ঠানের পিই যত কম, ওই প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ ঝুঁকি তত কম। সাধারণত যেসব প্রতিষ্ঠানের পিই ১০-১৫ এর মধ্যে থাকে, সেই প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ অনেকটাই ঝুঁকিমুক্ত।

তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, বড় ধরনের দরপতনের কারণে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সার্বিক মূল্য আয় অনুপাত (পিই রেশিও) বেশ নিচে অবস্থান করছে। গত সপ্তাহের পাঁচ কার্যদিবসে মধ্যে তিন কার্যদিবসে দরপতন হয়। এতে সপ্তাহ শেষে ডিএসইর পিও রেশিও অবস্থান করছে ১২ দশমিক ১৮ পয়েন্টে।

এমন পতনের বাজারে সাতটি খাতের পিই রেশিও ১৫ পয়েন্টের নিচে রয়েছে। এ খাতগুলোর মধ্যে রয়েছে- ব্যাংক, প্রকৌশল, বীমা, খাদ্য, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, টেলিযোগাযোগ এবং সেবা ও আবাসন। অপরদিকে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে- কাগজ ও মুদ্রণ, আর্থিক এবং পাট খাত। এ তিনটি খাতের পিই রেশিও ৪০ পয়েন্টের ওপরে।

বাজারের এ পরিস্থিতে সব থেকে কম পিই রেশিও রয়েছে ব্যাংক খাতের। সপ্তাহ শেষে ব্যাংক খাতের পিই রেশিও অবস্থান করছে ৭ দশমিক ১৬ পয়েন্টে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা টেলিযোগাযোগ খাতের পিই ১০ দশমিক ৪৬ পয়েন্ট অবস্থান করছে। এর পরের স্থানেই রয়েছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত। এ খাতের পিই ১০ দশমিক ৮৩ পয়েন্টে রয়েছে।

১৫ পয়েন্ট নিচে পিই থাকা অন্য খাতগুলোর মধ্যে- সেবা ও আবাসন খাতের পিই ১২ দশমিক ১৪ পয়েন্ট, বীমার ১৩ দশমিক ৭৮, প্রকৌশলের ১৪ দশমিক ৯৮ এবং খাদ্য খাতের ১৪ দশমিক ৩২ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

অপরদিকে সব থেকে বেশি পিই রেশিও থাকা খাতগুলোর মধ্যে আর্থিক খাতের ৪৫ দশমিক ২০ পয়েন্ট, পাট খাতের ৪৩ দশমিক ৮৬, পেপার খাতের ৪১ দশমিক ১৮, সিমেন্ট খাতের ৩৬ দশমিক ৩৫ এবং ভ্রমণ ও অবকাশ খাতের ৩০ দশমিক ৫৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

বাকি খাতগুলোর পিই ৩০-এর নিটে। এর মধ্যে- বস্ত্র খাতের ১৬ দশমিক শূন্য ১ পয়েন্ট, ওষুধ ও রসায়ন খাতের ১৬ দশমিক শূন্য ৯, তথ্য প্রযুক্তির ১৯ দশমিক ৬৩, বিবিধ খাতের ২৩ দশমকি ২৫, সিরামিক খাতের ২৬ দশমিক ৫১ এবং চামড়া খাতের ২১ দশমিক ১১ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ০৮ ফেব্রুয়ারি

ব্যবসা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে