Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২৭ মে, ২০২০ , ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-১১-২০২০

বিজেপির ভরাডুবিতে সভাপতি সৌমিত্র, সর্বোচ্চ ভোটে জয়ী জিৎ-সোহম

বিজেপির ভরাডুবিতে সভাপতি সৌমিত্র, সর্বোচ্চ ভোটে জয়ী জিৎ-সোহম

কলকাতা, ১২ ফেব্রুয়ারি - লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি ১৮টি আসন জিতে রীতিমতো চমক দেখিয়েছে। তারা ক্ষমতায় বসতেই পালাবদলের খেলা শুরু হয়ে গেল টালিউডে। গেল কয়েক বছরে দফায় দফায় দিল্লি এবং কলকাতায় বড় ও ছোট পর্দার বেশ কিছু মুখ যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। এতে করে এ রাজ্যের সিনেমায় তৈরি হয়েছে নয় নয় করে দুটি বিজেপি সমর্থিত কলাকুশলীদের সংগঠন।

এই প্রেক্ষাপটেই ২০২০ সালের আর্টিস্ট ফোরামের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে গেল। এ নির্বাচন নিয়ে সবার আগ্রহ ছিল তুঙ্গে। উত্তেজনাও। নজিরবিহীনভাবে এবছর আর্টিস্ট ফোরামের বিভিন্ন পদের জন্য ৩৭ জন মনোনয়ন জমা দেন। যার মধ্যে বিজেপিঘনিষ্ঠ বহু মুখই ছিলেন। টানটান উত্তেজনায় ভোটগ্রহণ শেষে দেখা গেল বিজেপি অর্থাৎ গেরুয়া শিবিরের ভরাডুবি।

দলটির সমর্থিত অনিন্দ্য পুলক বন্দ্যোপাধ্যায়, অঞ্জনা বসু, কৌশিক চক্রবর্তী, লামা বা রূপা ভট্টাচার্য-বিজেপিতে যোগ দেওয়া ছোটপর্দার বড়মুখেরা সবাই হেরেছেন।

বড় ব্যবধানে জিতেছেন অরিন্দম গাঙ্গুলি বা জুন মালিয়ারা। শাসক ঘনিষ্ঠ ভরত কল কিছু ভোটের ব্যবধানে হেরে গিয়েছেন শংকর চক্রবর্তীর কাছে। তাৎপর্যের বিষয়টি হল, শংকর চক্রবর্তী-পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়-দেবদূত ঘোষকে কখনোই শাসক ঘনিষ্ঠ বলা যায় না। বরং তারা রাজনৈতিকভাবে বামপন্থী হিসেবেই পরিচিত। আর্টিস্ট ফোরামের নির্বাচনে তারা কোনও রঙই সরাসরি নিজেদের গায়ে লাগতে দেননি।

এবার সংসদীয় নির্বাচনের পদ্ধতিতে গোপন ব্যালটেই ভোটদান হয়েছে আর্টিস্ট ফোরামে। গেল ৯ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ কলকাতার এক স্কুলে ভোটগ্রহণকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছিল চরমে। ফোরামের ৩৫০০ সদস্যের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ২৫০০ জন।

গননার পর আর্টিস্ট ফোরামের কার্যকরী সভাপতি নির্বাচিত হলেন শঙ্কর চক্রবর্তী। এছাড়াও সভাপতি পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন বরেণ্য অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। এর আগে দুবছর কার্যকরী সভাপতির পদে ছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। সম্প্রতি ইস্তফা দেন তিনি।

এবছর নির্বাচনে সভাপতি পদে প্রার্থী হিসেবে উঠে এসেছেল ভরত কল, অঞ্জনা বসু, পার্থসারথি দেব এবং শংকর চক্রবর্তীর নাম। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর সবাইকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যান শংকর চক্রবর্তী।

এখানে সহ-সভাপতির পদে সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন জিৎ। এরপরই আছেন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং সোহম চক্রবর্তী।

সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন অরিন্দম গাঙ্গুলি, যুগ্ম সম্পাদক শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়, সপ্তর্ষি রায়, সহ-সম্পাদক দেবদূত ঘোষ, রানা মিত্র। এছাড়া কার্যকরী সমিতির সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন কুশল চক্রবর্তী, জুন মালিয়া, সাগ্নিক, দিগন্ত বাগচি এবং সোনালী চৌধুরী।

এন এইচ, ১২ ফেব্রুয়ারি

টলিউড

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে