Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ৭ জুলাই, ২০২০ , ২৩ আষাঢ় ১৪২৭

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-২১-২০২০

একুশে পদকপ্রাপ্ত আব্দুল জব্বারের নিজ এলাকায় খুশির বন্যা

একুশে পদকপ্রাপ্ত আব্দুল জব্বারের নিজ এলাকায় খুশির বন্যা

মৌলভীবাজার, ২১ ফেব্রুয়ারী- বৃহত্তর সিলেটের ত্যাগি নেতা আব্দুল জব্বারকে মহান মুক্তিযুদ্ধে গৌরবময় ও কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসরকারি সম্মাননা ‘একুশে পদক’ (মরণোত্তর) প্রদান করায় খুশির বন্যা বইছে তার নিজ এলাকা কুলাউড়ায়।

এলাকার সব শ্রেণি-পেশার মানুষ আব্দুল জব্বারকে আব্দুল জব্বারকে একুশে পদক প্রদান করায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অমর একুশে ফেব্রুয়ারি এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রাক্কালে আব্দুল জব্বারের পুত্র ও প্রধানমন্ত্রীর প্রটোকল অফিসার আবু জাফর রাজুর হাতে এই ‘একুশে পদক’ (মরণোত্তর) তুলে দেন।

এ বিষয়ে কুলাউড়ার ভাষা সংগ্রামী কমরেড আব্দুল মালিক বলেন, ১৯৬২ সালে আব্দুল জব্বার ৮ম শ্রেণির ছাত্র থাকাকালীন সময় শিক্ষা আন্দোলনের জন্য জেলে যান। জেল থেকে মুক্তি পেয়ে তিনি সিলেটের ডা. চঞ্চলের মাধ্যমে ছাত্রলীগে যোগ দেন। এরপর থেকে ধারাবাহিকভাবে জাতীয় রাজনীতিতে দায়িত্বপালন করেন। তিনি আরও বলেন, আব্দুল জব্বারসহ আমরা কুলাউড়ায় আয়ূব বিরোধী আন্দোলনসহ বিভিন্ন দাবি আদায়ের লক্ষ্যে রাজ পথে প্রতিবাদী ছিলাম। আমার এই সহকর্মীকে একুশে পদক প্রদান করায় আমি আনন্দিত।

কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম রেনু বলেন, ১৯৬২ সালে আয়ূব খানের শিক্ষা কমিশনের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ সংগ্রামসহ দেশকে স্বাধীন ও আওয়ামী লীগের দলীয় সাংগঠনিক কার্যক্রম বৃদ্ধি করতে এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বাস্তবায়ন করতে গিয়ে বার বার কারাবরণ ও নির্যাতিত হন আব্দুল জব্বার। স্বাধীনতা ও '৭৫ পরবর্তী সময়ে কুলাউড়া উপজেলায় আওয়ামী লীগের দুর্দিনের পথপ্রদর্শক এই নেতা একুশে পদকে মূল্যায়িত হওয়ায় কুলাউড়াবাসী গর্বিত।

কুলাউড়া পৌর মেয়র শফি আলম ইউনুছ বলেন, মরহুম আব্দুল জব্বার ছিলেন রাজনৈতিকভাবে পরিচ্ছন্ন। তিনি আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করতে গিয়ে মৃত্যুর ঝুঁকি নিয়ে সাহসিকতার সহিত সাংগঠনিক দায়িত্বপালন করেছেন। কুলাউড়ার এই কৃতি পুরুষ বঙ্গবন্ধুর প্রকৃত আদর্শের কর্মী ছিলেন।

কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান একুশে পদকপ্রাপ্ত (মরণোত্তর) আব্দুল জব্বার পুত্র আসম কামরুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আমার পিতা আমৃত্যু সততার সঙ্গে রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। আ.লীগ সভাপতি  ও প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনা ও সরকারের সংশ্লিষ্ট সবাইকে পরিবারের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমার বাবার এই আর্জন বৃহত্তর সিলেটের গর্ব।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার রাজধানীর সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ২০ ব্যক্তি এবং এক প্রতিষ্ঠানের মাঝে আব্দুল জব্বারকেও ‘একুশে পদক-২০২০’ প্রদান করা হয়। মরহুম আব্দুল জব্বার ১৯৬২-এর শিক্ষা আন্দোলন, '৬৬-এর ছয়-দফা, '৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান, '৭০-এর নির্বাচন ও ১৯৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও রণাঙ্গণের যোদ্ধা এবং স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনসহ সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছিলেন।

এছাড়া তিনি কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সভাপতির পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের প্রতিষ্ঠাকালীন থেকে কেন্দ্রীয় কমিটি, রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি এবং ঘাতক নির্মূল কমিটি, কুলাউড়া থানা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক (১৯৬৪) ছিলেন। আমৃত্যু বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে, আদর্শ বাস্তবায়নের জন্য জেল-জুলুম নির্যাতন উপেক্ষা করে বাংলার গণমানুষের মুক্তির লক্ষ্যে কাজ করেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে নির্মমভাবে হত্যার পর প্রতিবাদ করার কারণে তিনি দুইবার কারারুদ্ধ ছিলেন। প্রথমবার জেল থেকে মুক্তি পেয়ে সক্রিয়ভাবে রাজনৈতিক কার্যক্রম শুরু করলে পুনরায় ঈদুল আযহার রাতে গ্রেফতার হন। জেলের অভ্যন্তরে বঙ্গবন্ধুর প্রধান খুনি মেজর নুর তাকে নির্যাতন করে এবং হত্যার জন্য উদ্ধৃত হয়। সেই সময় তৎকালীন সেনা অফিসার, পরবর্তীতে রাষ্ট্রদূত প্রয়াত বিগ্রেডিয়ার জেনারেল আমিন আহমেদ চৌধুরী তাকে উদ্ধার করেন। আব্দুল জব্বার ১৯৭৯ সালে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে জাতীয় সংসদ সদস্য এবং পরবর্তীতে ১৯৯০ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হন। তিনি ১৯৯২ সালের ২৮ আগস্ট মাত্র ৪৭ (১৯৪৫-১৯৯২) বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

সূত্র : সমকাল
এন কে / ২১ ফেব্রুয়ারি

মৌলভীবাজার

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে