Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ৩ জুন, ২০২০ , ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (15 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-১২-২০২০

কোরিয়াফেরত দুজন মানছে না নির্দেশনা, গফরগাঁওয়ে করোনা-প্রতিরোধে সমস্যাসংকুল

কোরিয়াফেরত দুজন মানছে না নির্দেশনা, গফরগাঁওয়ে করোনা-প্রতিরোধে সমস্যাসংকুল

ময়মনসিংহ, ১২ মার্চ- কোরিয়াফেরত ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার দুই ব্যাক্তিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দিয়েছে উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্স। তবে তারা এই নির্দেশনা মানছে না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাড়িতে নিবিড় বিশ্রামে না থেকে ঘুরে বেড়াচ্ছেন লোকালয়ে। এদিকে উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে ভবনের তিন তলার একটি কক্ষে ৫ বেডের আইসোলেশন ইউনিট গঠন করা হলেও কক্ষটি মোটেই স্বাস্থ্য সম্মত নয় জানা গেছে।

জানা যায়, সম্প্রতি উপজেলার ঘাগড়া ও পার্শবর্তী উথুরী গ্রামের কোরিয়াফেরত দুই ব্যক্তি বাড়ি আসার খবর পেয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পরিক্ষা করেছে। তবে তাদের দেহে করোনাভাইরাসের কোন লক্ষণ পায়নি। তারপরেও ১৪দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দশনা দিয়েছে সাস্থ্য কমপ্লেকের ডাক্তাররা। তারা সেই নির্দেশনা না মেনে অবাদে চলাফেরা ও মেলামেশা করছেন। এ অবস্থায় করোনাভাইরাস ছড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাইনুদ্দিন খানের উদ্যেগে করোনাভাইরাস প্রতিকার ও প্রতিরোধ বিষয়ে সেমিনার, লিফলেট বিতরণ, হাত ধোয়া, পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের তিন তলায় একটি কক্ষে ৫ শয্যার আইসোলেশন ইউনিট স্থাপন করা হয়েছে। দায়িত্ব পালনের জন্য ডা. সিফাত জামিল তারেক, ডা. উজ্জল কুমার সরকার, ডা. আসিবুল আলমসহ ৭ সদস্যের একটি র‌্যাপিড রেসপন্ড কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ছাড়াও একটি আইটিআই ইউনিট স্থাপন করা হয়েছে। সেখানে শুধু সর্দি-জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট জনিত রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হবে এবং করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেলে রোগীকে দ্রুত আইসোলেশন ইউনিটে স্থানান্তর করা হবে। তবে আইসোলেশন ইউনিটের কক্ষটি স্বাস্থ্য সম্মত নয়। কাঁচের জানালাগুলো ভাঙা থাকায় পাখি প্রবেশ করে এবং ছাদ ও দেওয়ালগুলো ড্যাম। 

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক ডা. নাছরিন সুলতানা মুন বলেন, আমাদের পূর্ণ প্রস্তুতি রয়েছে। 

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাইনুদ্দিন খান বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে ইতিমধ্যে আমরা সেমিনার, লিফলেট বিতরণ, হাত ধোয়া ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি পালন করেছি। পাঁচ শয্যার আইসোলেশন ইউনিট স্থাপন করে সাত সদস্যের একটি কমিটি করে দিয়েছি পালাক্রমে দায়িত্ব পালনের জন্য।

সূত্র : কালের কণ্ঠ
এম এন  / ১২ মার্চ

ময়মনসিংহ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে