Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১১ জুলাই, ২০২০ , ২৭ আষাঢ় ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-১৪-২০২০

প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী করোনা আক্রান্ত, স্পেনে জরুরি অবস্থা

প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী করোনা আক্রান্ত, স্পেনে জরুরি অবস্থা

মাদ্রিদ, ১৫ মার্চ - কয়েক দিন আগে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর স্ত্রী সোফি গ্রেগরি ট্রুডোর শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। এবার প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজের স্ত্রী বেগোনা গোমেজ।

শনিবার (১৪ মার্চ) স্পেনের সরকারি বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

বিবৃতির বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্পেনের প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন মনক্লোয়ায় পেদ্রো সানচেজের স্ত্রী বেগোনা গোমেজের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষায় তার শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। এরপর প্রধানমন্ত্রীর আশপাশে চলাফেরা করা ব্যক্তিদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে দেখা যায়, তারাও করোনায় আক্রান্ত। বেগোনা গোমেজ বর্তমানে মনক্লোয়ায়ই আছেন। স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের দেয়া প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা অনুসরণ করছেন তিনি।

গত কয়েক দিন আগে চীনের উহান থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন এমন শঙ্কায় স্বেচ্ছায় আইসোলেশনে গিয়েছিলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ও তার স্ত্রী সোফি গ্রেগরি ট্রুডো। কিন্তু আইসোলেশনে যাওয়ার পরপরই ট্রুডোর স্ত্রী সোফির শরীরে করোনা শনাক্ত করা হয়।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর শরীরের এখনও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেনি। এছাড়া তার স্ত্রী সোভি করোনায় আক্রান্ত হলেও তার অবস্থা স্থিতিশীল। শারীরিক অবস্থা অতটা গুরুতর নয়। তারা দুজন এখন ১৪ দিনের আইসোলেশনে রয়েছেন।

স্পেনে এখন পর্যন্ত ৬ হাজার ৩৯১ জন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এতে দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ১৯৫ জনের।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী পেদ্রে সানচেজ এ সংকট মোকাবিলার জন্য এরই মধ্যে স্টেট অব এলার্ট জারি করেন। তবে পরিস্থিতি বিবেচনায় সোমবার (১৬ মার্চ) থেকে দেশটি লকডাউন (অবরুদ্ধ) ঘোষণা করতে যাচ্ছেন পেদ্রে সানচেজ।

গত শুক্রবার দেশটির বড় শহরগুলোতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। এরপর থেকে বার, রেস্টুরেন্ট ও দোকানপাট বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। শুধু প্রাথমিক প্রয়োজনীয় জিনিস কেনার জন্য সুপার মার্কেট, ফার্মেসি, পেট্রল পাম্পগুলো খোলা রাখা হয়েছে।

সর্বশেষ খবর অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে ১ লাখ ৫৬ হাজার ৪৩৮ জন আক্রান্ত হয়েছে। এতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৮৩১ জনে।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ১৫ মার্চ

ইউরোপ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে