Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০ , ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-১১-২০২০

জয়পুরহাটে করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলেন ৪ জন

জয়পুরহাটে করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলেন ৪ জন

জয়পুরহাট, ১১ মে - জয়পুরহাটে করোনাভাইরাসকে জয় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন চারজন। তারা গোপীনাথপুর হেলথ অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউটের আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন। রোববার (১০ মে) গোপীনাথপুর হেলথ অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউটের আইসোলেশন ইউনিট চত্বরে স্বাস্থ্য বিভাগ ও হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনের পক্ষ থেকে ফুলের তোড়া, ফলমূলের প্যাকেট ও ছাড়পত্র দিয়ে সুস্থ হওয়া চারজনকে বিদায় জানানো হয়।

এ সময় জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেলিম মিঞা, সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তুলসী চন্দ্র, আক্কেলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রাধেশ্যাম আগরওয়ালা, পাঁচবিবি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ও গোপীনাথপুর হেলথ অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউটের প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশন ইউনিটের দায়িত্বপ্রাপ্ত ডা. রাফসান জানি, গোপীনাথপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ জোয়ারদারসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

গোপীনাথপুর আইসোলেশন ইউনিটের ইনচার্জ আতিকুর রহমান জানান, গত ১৬ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা কালাই উপজেলার জিন্দারপুর গ্রামের দুই সবজি ব্যবসায়ীর শরীরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয় এছাড়াও ২০ এপ্রিল পাঁচবিবি উপজেলার ছোট মানিক এলাকার নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা ৩৩ বছরের এক যুবকের কোনো উপসর্গ না থাকলেও করোনা পজিটিভ ও ২১ এপ্রিল একই উপজেলার পূর্ব কড়িয়া বটতলী এলাকার নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা ৪৩ বছরের এক ব্যক্তির করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। এদের সবাইকে করোনা শনাক্তের পর গোপীনাথপুর হেলথ অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউটের আইসোলেশন ইউনিটে আনা হয়। প্রায় এক মাস চিকিৎসা শেষে তাদেরকে করোনামুক্তির ছাড়পত্র দেয়া হলো।

পাঁচবিবি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ও গোপীনাথপুর হেলথ অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউটের প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশন ইউনিটের দায়িত্বপ্রাপ্ত ডা. রাফসান জানি বলেন, করোনা যেহেতু প্রথম একটি রোগ সেহেতু রোগীদের উপসর্গভিত্তিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। প্রথমে রোগীরা ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন। আমরা রোগীদের মানসিকভাবে মনোবল শক্ত রাখতে চেষ্টা করেছি। এতেই ভালো ফল হয়েছে।

জয়পুরহাটের সিভিল সার্জন ডা. সেলিম মিঞা জানান, চারজনকে ছাড়পত্র দিয়ে বাড়ি পাঠানো হয়েছে। তাদের প্রথম নমুনা পরীক্ষায় চারজনেরই পজিটিভ এসেছিল। তাই তাদেরকে আইসোলেশনে আনা হয়েছিল। পরে দুই দফায় নমুনা পরীক্ষায় তাদের নেগেটিভ রিপোর্ট আসে।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ১১ মে

জয়পুরহাট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে