Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ৯ আগস্ট, ২০২০ , ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-১৬-২০২০

লাকসামের মুদাফরগঞ্জ বাজারে উপচেপড়া ভীড়

লাকসামের মুদাফরগঞ্জ বাজারে উপচেপড়া ভীড়

কুমিল্লা, ১৬ মে- কুমিল্লার লাকসামের মুদাফরগঞ্জ বাজারে ঈদের সামনে রেখে জনস্রোত বইছে। ক্রেতা বিক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়ে নাকাল অবস্থা। কেউ মানছেনা স্বাস্থ্যবিধি। ফলে করোনা সংক্রামনের ঝুঁকি বাড়ছে।

ব্যবসায়ী সংগঠন নিষ্ক্রিয় থাকায় নেয়া হচ্ছে না কার্যকর কোন পদক্ষেপ। এতে করোনা ঝুঁকির আশঙ্কা করছেন সচেতন মহল।

গতকাল দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, লাকসামের পশ্চিমাঞ্চলে মুদাফরগঞ্জ সর্ববৃহৎ একটি আঞ্চলিক বাজার। এখানে কয়কশত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। ঈদকে সামনে রেখে ওই বাজারের কাপড়, গার্মেন্ট, কসমেটিক্স ও জুতা দোকান সমুহে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড় ছিল লক্ষণীয়। সকাল হওয়ার পরপরই ক্রেতা-বিক্রেতাদের আগমনে মুখরিত হয়ে উঠে পুরো বাজার। বেলা যত গড়াতে থাকে ক্রেতাদের ভীড়ও তত বাড়তে থাকে। বাজার কমিটি থাকলেও বছরের পর বছর নিষ্ক্রিয়। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে তাদের পক্ষ থেকে নেয়া হয়নি কার্যকর কোন পদক্ষেপ।

কুমিল্লার লাকসাম ও বরুড়া, চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় অবস্থিত মুদাফরগন্জ বাজার। এক কথায় এই বাজারটি তিন উপজেলার মোহনা। ফলে বাজারটিতে তিনটি উপজেলার প্রচুর জনসমাগম ঘটে।

বাজারের একাধিক ব্যবসায়ী জানায়, সম্প্রতি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শাহিদুল ইসলাম শাহিন করোনা ঝুঁকির বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় করে সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনার নির্দেশনা দিলেও কোনো কোনো ব্যবসায়ী তা মানছেন না বলে অভিযোগ ওঠেছে।

তারা জানান, ব্যবসায়ীদের ১২টা পর্যন্ত দোকান চালুর রাখার সময়সূচি নির্ধারণ করে দিলেও কতিপয় ব্যবসায়ী তাদের খেয়াল খুশিমতো দোকান খুলছেন এবং বন্ধ করছেন। নিয়মনীতির তোয়াক্কা করছেন না। এ সময় একজন আক্ষেপ করে বলেন, ক্রেতা বিক্রেতার একই অবস্থা। কে শোনে কার কথা !

এলাকার সচেতন মহলের অভিযোগ, ঈদকে সামনে রেখে এই বাজারে প্রতিদিনই ক্রেতাদের ভিড় বাড়ছে। কোনো দোকানের সামনেই নেই সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা। কিংবা দোকানে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখতে সুরক্ষারেখা নেই। গাদাগাদি করে বসে ক্রেতারা তাদের পছন্দের পণ্য কিনছেন। এভাবে চলতে থাকলে পুরো এলাকায় করোনা ভাইরাস সংক্রমনের যথেষ্ট ঝুঁকি রয়েছে বলে তারা অভিমত ব্যক্ত করেন।

মুদাফরগঞ্জ উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম শাহীন বাজারে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ব্যবসায়ীদের নিয়মনীতি মেনে ব্যবসা পরিচালনার অনুরোধ করেছি। দ্রুত আবারও ব্যবসায়ীদেরকে নিয়ে বসে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এই ব্যাপারে লাকসাম উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট উজালা রাণী চাকমা বলেন, করোনা সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে সচেতনতার বিকল্প নেই। এ ক্রেতা-বিক্রেতাদের স্বাস্থ্যবিধি এবং নিয়মনীতি মেনে চলা উচিত। কেউ এর ব্যত্যয় ঘটালে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্র : কালের কণ্ঠ
এম এন  / ১৬ মে

কুমিল্লা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে