Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই, ২০২০ , ১৮ আষাঢ় ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৬-০৩-২০২০

অন্তঃসত্ত্বা হাতির হত্যাকারীর খোঁজ দিলেই ৫০ হাজার টাকা

অন্তঃসত্ত্বা হাতির হত্যাকারীর খোঁজ দিলেই ৫০ হাজার টাকা

নয়াদিল্লি, ৩ জুন-  ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের রাজ্য কেরালাতে অন্তঃসত্ত্বা যে হাতিটিকে হত্যা করা হয়েছে, তার খুনিদের ধরিয়ে দিতে পারলে ৫০ হাজার টাকা পুরষ্কার ঘোষণা করেছে ইন্টারন্যাশনাল হিউমেন সোসাইটি।

আজ মঙ্গলবার ইন্টারন্যাশনাল হিউমেন সোসাইটি এ ঘোষণা দেয়। খুনিদের ধরিয়ে দিতে তারা একটি ফোন নম্বর ও মেইল আইডি দিয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও বিষয়টি নিয়ে জোরেশোরে কাজ শুরু করেছে তারা। এ ছাড়া বিভিন্ন সংগঠন অন্তঃসত্ত্বা হাতির খুনিদের শাস্তির দাবি করেছে।

কলকাতাভিত্তিক গণমাধ্যম এই সময় তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে, পশুপ্রেমী সংগঠন থেকে চিত্রতারকা, খেলোয়ার, সাধারণ মানুষও প্রবল প্রতিবাদ এই হৃদয়বিদারক ঘটনায়। পশু হলেও একটা মাকে হত্যা করতে যাদের মন কাঁদেনি তাদের হৃদয় হিংস্র বলে মন্তব্য তাদের।

দেশটির ক্ষমাতীন সরকার বিজেপি সাংসদ মানেকা গান্ধী বলেছেন, ‘এটা নৃশংস হত্যা। মালাপ্পুরমে এই ধরনের ঘটনা অনেক সময়ই ঘটে। সবথেকে হিংস্র জেলা এটি। রাস্তার ধারে বিষ ছড়িয়ে রাখা হয় যাতে পাখি, কুকুর খেয়ে একসঙ্গে মারা যায়।’

কেরালায় অন্তঃসত্ত্বা হাতিটিকে আনারসের মধ্যে বিস্ফোরক ভরে খাইয়ে দেওয়া হয়েছিল। আহত হওয়ার পরও হাতিটি কাউকে আঘাত না করে গ্রাম ছেড়ে চলে যায়। ভেলিয়ার নামে একটি নদীতে গিয়ে দাঁড়িয়ে থাকে। টানা তিনদিন মুখ এবং শুঁড় পানির নিচে রেখে সেখানে দাঁড়িয়ে থাকে আনুমানিক ১৪-১৫ বছরের হাতিটি।

পালাক্কাড় এলাকার সাইলেন্ট ভ্যালি নাশনাল পার্কের বন্যপ্রাণী বিভাগের ওয়ার্ডেন স্যামুয়েল ওয়াচা বলেন, ‘হাতিটি কোথায় আহত হয়েছিল তা আমরা জানতে পারিনি। পানির নিচে থেকে সে পানি খাচ্ছিল, যা সম্ভবত তাকে কিছুটা আরাম দিচ্ছিল। হাতিটির চোয়ালের দুই পাশই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তার দাঁতও ভেঙে গেছে।’

পাল্লাকাড়ের মান্নারকাড় অঞ্চলের বন বিভাগ কর্মকর্তা সুনিল কুমার জানান, হাতিটি আহত হয়েছে বুঝতে পারার পর বন বিভাগের কর্মকর্তারা চেষ্টা করেছিলেন নদী থেকে হাতিটিকে সরিয়ে এনে তার চিকিৎসা দেওয়ার। কিন্তু হাতিটিকে কিছুতেই নদী থেকে সরানো যায়নি।

পশু চিকিৎসকদের দিয়ে হাতিটির অপারেশন করানোর চেষ্টা করছিল বন বিভাগ। অবশেষে ২৭ মে নদীতে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থাতেই হাতিটি মারা যায়। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের পর জানা যায় যে, হাতিটি অন্তঃসত্ত্বা ছিল।

স্যামুয়েল ওয়াচা জানান, এই ঘটনায় একটি মামলা করা হয়েছে এবং জড়িতদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

সূত্র: আমাদের সময়

আর/০৮:১৪/৩ জুন

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে