Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ৩ আগস্ট, ২০২০ , ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-২৯-২০২০

বেতন না দিলেও আপাতত ভার্চুয়াল ক্লাসে বসতে শিক্ষার্থীদের বাধা নেই

বেতন না দিলেও আপাতত ভার্চুয়াল ক্লাসে বসতে শিক্ষার্থীদের বাধা নেই

ঢাকা, ২৯ জুলাই- করোনাকালীন রাজধানী উত্তরার ইংলিশ মিডিয়াম ডিপিএসএস (দিল্লি পাবলিক) স্কুলের টিউশন ফি না দেওয়ার শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাসের বাইরে রাখা যাবে না মর্মে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত। ফলে আপাতত শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাসে বসতে বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। একইসঙ্গে আগামী ১৬ আগস্ট আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে সংশ্লিষ্ট স্কুল কর্তৃপক্ষের আবেদন শুনানির জন্য পাঠানো করেছেন আদালত।

বুধবার (২৯ জুলাই) আপিল বিভাগের বিচারপতি নুরুজ্জামানের চেম্বার জজ আদালত এ আদেশ দেন। 

আরও পড়ুন: গবেষণায় আগ্রহ নেই ঢাবির, শিক্ষকরা ব‌্যস্ত বাড়তি উপার্জনে

আদালতে স্কুল কর্তৃপক্ষের আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। আর রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট এএম আমিন উদ্দিন, ব্যারিস্টার আশরাফুজ্জান ও মোহাম্মদ ওমর ফারুক।

এর আগে গত ১৫ জুলাই টিউশন ফি পরিশোধ করতে না পারলেও কোনও শিক্ষার্থীকে অনলাইন ক্লাসের বাইরে রাখা যাবে না মর্মে আদেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে বেসরকারি ইংরেজি মিডিয়াম স্কুলের টিউশন ফি ৫০ শতাংশ কমানো এবং ক্লাসের পরীক্ষাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালকের (ডিজির) কাছে করা আবেদন সাত দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। এ সংক্রান্ত এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের ভার্চুয়াল আদালত এসব আদেশ দেন। পরে ওই আদেশের বিরুদ্ধে স্কুল কর্তৃপক্ষ আপিল আবেদন করেন।

প্রসঙ্গত, রাজধানী উত্তরার ইংলিশ মিডিয়াম ডিপিএসএসটিএস (দিল্লি পাবলিক) স্কুলের টিউশন ফি ৫০ শতাংশ কমানোর দাবিতে শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালকের (ডিজির) কাছে আবেদন করেন ওই স্কুলের এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক কামরুজ্জামান।

অভিভাবকের আবেদনের বিষয়ে শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালকের (ডিজির) কাছ থেকে কোনও সিদ্ধান্ত না আসায় ১২ জুলাই কামরুজ্জামানের পক্ষে ব্যারিস্টার মোহাম্মদ ওমর ফারুক রিট করেন।

রিটে ডিপিএসএসটিএস (দিল্লি পাবলিক) স্কুলের টিউশন ফি না দেওয়ায় শিক্ষার্থীকে অনলাইনে ক্লাস থেকে বঞ্চিত না করার নির্দেশনা চাওয়া হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) ও ডিপিএসএসটিএস স্কুল কর্তৃপক্ষকে রিটে বিবাদী করা হয়।

সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন
এম এন  / ২৯ জুলাই

আইন-আদালত

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে