Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ৫ আগস্ট, ২০২০ , ২১ শ্রাবণ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-০৩-২০১২

সিইসি পদে যাদের নাম সার্চ কমিটির তালিকায়

সিইসি পদে যাদের নাম সার্চ কমিটির তালিকায়
প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) পদে চার সাবেক আমলা এবং নির্বাচন কমিশনার (ইসি) পদে ১০ সাবেক সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা রয়েছেন সার্চ কমিটি’র সর্বশেষ তালিকায়। এদের মধ্য থেকেই প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এবং নির্বাচন কমিশনার (ইসি) নিয়োগ দেয়া হবে। ইতিমধ্যে সার্চ কমিটির পক্ষ থেকে সম্ভাব্য প্রধান নির্বাচন কমিশনারদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। আগামী সোমবার প্রেসিডেন্টের কাছে পাঠানোর হবে সার্চ কমিটির তালিকা। গতকাল সার্চ কমিটির প্রধান ও আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের কক্ষে সার্চ কমিটির বৈঠক হয়। বৈঠকে সার্চ কমিটির সদস্য হাইকোর্ট বিভাগের বিচারক মো. নূরুজ্জামান, সরকারি কর্মকমিশনের চেয়ারম্যান এটি আহমেদুল হক চৌধুরী ও মহা-হিসাব নিরীক্ষক আহমেদ আতাউল হাকিম ছাড়াও মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা ও অতিরিক্ত সচিব মর্তুজা আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। ওই বৈঠকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার পদে ১০ জনের মধ্য থেকে চার জনের নাম চূড়ান্ত করা হয়েছে। এছাড়া ২০ জনের তালিকা থেকে নির্বাচন কমিশনার পদে নিয়োগ দেয়ার জন্য ১৫ জনের নাম চূড়ান্ত করা হয়। প্রেসিডেন্টের কাছে পাঠানোর আগে এ সংখ্যা ১০-এ নামিয়ে আনা হবে। সার্চ কমিটির গতকালের বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব সাংবাদিকদের বলেন, সার্চ কমিটি একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা তৈরি করেছে। আগামী সোমবার এ কমিটি আবারও বৈঠকে বসবে। আশা করছি, ওই বৈঠকের পরই সার্চ কমিটি তাদের সুপারিশ পাঠাতে পারবে। সার্চ কমিটি সূত্রে জানা গেছে, তালিকায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে বর্তমান প্রধান নির্বাচন কমিশনার ড. এটিএম শামসুল হুদা, সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আলী ইমাম মজুমদার, সাবেক যোগাযোগ সচিব রেজাউল হায়াত এবং সাবেক শিক্ষা সচিব কাজী রকিব উদ্দিন আহম্মেদের নাম রয়েছে। এদের মধ্যে গত ৩১শে জানুয়ারি ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ বর্তমান প্রধান নির্বাচন কমিশনার এটিএম শামসুল হুদাকে আবারও প্রধান নির্বাচন কমিশনার পদে রাখার প্রস্তাব করেছে সার্চ কমিটির কাছে। এর বাইরে আরও চার জনের নামের তালিকা পাঠায় নির্বাচন কমিশনার (ইসি) পদে নিয়োগ দিতে। দলটি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম হানিফ স্বাক্ষরিত নামের তালিকা বিশেষ দূত মারফত সার্চ কমিটির কাছে পাঠায়। সার্চ কমিটির কাছে তালিকা দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রধান নির্বাচন কমিশনার পদে প্রস্তাবিত চার জনের মধ্যে সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আলী ইমাম মজুমদার ড. ফখরুদ্দীন আহমদের নেতৃত্বাধীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও একই সঙ্গে মুখ্য সচিবের দায়িত্ব পালন করেন। ওই সময় এক বছর চুক্তিভিত্তিক নিয়োগও পান তিনি। এছাড়া ড. ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদের নেতৃত্বাধীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে বাদ দিয়ে ড. ফখরুদ্দীন আহমদের তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে শপথ পড়ানোসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশংসা কুড়ান আলী ইমাম মজুমদার। একজন সৎ ও দক্ষ কর্মকর্তা হিসেবে প্রশাসনে তার সুনাম রয়েছে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার পদে প্রস্তাবিত আরও দুই জনের মধ্যে রেজাউল হায়াত ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকারের সময় যোগাযোগ সচিব পদে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া কাজী রকিব উদ্দিন আহম্মদ ওই সময় শিক্ষা সচিব পদে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। প্রশাসনের এ দুই সিএসপি কর্মরকর্তারও বেশ সুনাম রয়েছে। তবে এ দুই জনের একজনকে একটি দলের পৃষ্ঠপোষকতা করতে শোনা যায়। প্রথম পর্যায়ে ১০ জনের তালিকায় সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব এম আবদুল আজিজ ও মুখ্য সচিব এম আবদুল করিমের নাম থাকলেও সংক্ষিপ্ত তালিকায় তা বাদ দেয়া হয়। উল্লেখ্য, জাতীয় পার্টি (জেপি) রেজাউল হায়াতের নাম প্রস্তাব করে সার্চ কমিটির কাছে গত ৩১শে জানুয়ারি তালিকা জমা দেয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, চার জন কমিশনার নিয়োগ করতে ১০ জনের নাম প্রেসিডেন্টের কাছে পাঠানো হবে। এসব নাম একজনের বিকল্প আরেক জন হিসেবে পাঠানো হবে। নামগুলো মূলত চার ক্যাটিগরিতে প্রেসিডেন্টের কাছে যাবে। এর মধ্যে সাবেক জেলা জজ বা অতিরিক্ত জেলা জজ থেকে একজনকে। এক্ষেত্রে সুপ্রিম কোর্টের সাবেক রেজিস্ট্রারকে এ ক্যাটিগরিতে নিয়োগ দেয়া হতে পারে। অন্য আরেক ক্যাটিগরিতে সাবেক আমলাদের মধ্য থেকে একজন কমিশনারকে নিয়োগ দেয়া হবে। এক্ষেত্রে সাবেক বা বর্তমান সচিব এবং অতিরিক্ত সচিবদের বিবেচনায় নেয়া হবে। অন্যদিকে সাবেক সেনা, নৌ বা বিমান বাহিনীর কর্মকর্তাদের মধ্য থেকে একজন কমিশনার নিয়োগ দেয়া হবে। এক্ষেত্রে সার্চ কমিটি সাবেক সেনা কর্মকর্তাকে নিয়োগ দেয়ার বিষয়টি বিবেচনায় নিচ্ছে সবচেয়ে বেশি। এর বাইরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক বা অন্য কোন পেশা থেকে আরও একজন কমিশনারের নাম প্রস্তাব করছেন তারা। সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, কমিশনার পদে নিয়োগ দেয়ার জন্য ২০ জনের তালিকা থেকে ১৫ জনের নাম চূড়ান্ত করা হয়েছে। এদের মধ্যে বর্তমান স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ সচিব মুহম্মদ হুমায়ুন কবির, সাবেক সমাজকল্যাণ সচিব কামরুন্নেসা খানম, সাবেক স্বরাষ্ট্র সচিব এমএম রেজা, সাবেক অতিরিক্ত সচিব আবু হাফিজ এবং এএফজি মঈন উদ্দিন, সুপ্রিম কোর্টের সাবেক রেজিস্ট্রার ইকতিদার আহমেদ ও মেজর জেনারেল (অব.) আবদুর রশীদসহ ১৫ জনের নাম রয়েছে। এ তালিকার মধ্যে প্রথম চার জনের নাম আওয়ামী লীগের তালিকায় রয়েছে। এ তালিকার মধ্যে মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় নির্বাচন কমিশনের সচিব পদে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর তাকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব পদে নিয়োগ করা হয়। বর্তমানেও তিনি এ পদে কর্মরত রয়েছেন। এর আগে গত ২২শে জানুয়ারি নতুন নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে নামের সুপারিশ তৈরি করতে চার সদস্যের সার্চ বা অনুসন্ধান কমিটি গঠন করেন প্রেসিডেন্ট। প্রধান বিচারপতি মনোনীত আপিল বিভাগের এক জন বিচারককে সভাপতি করে গঠিত এই কমিটিতে সদস্য করা হয় হাইকোর্ট বিভাগের এক জন বিচারক, মহা-হিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক এবং সরকারি কর্মকমিশন চেয়ারম্যান। সার্চ কমিটি গঠনের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, অনুসন্ধান কমিটি গঠনের ১০ কার্য দিবসের মধ্যে কমিটির সুপারিশ প্রেসিডেন্টের কাছে পেশ করবে। কমিটি সিইসি ও নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে প্রতিটি শূন্য পদের বিপরীতে দুই জন করে ব্যক্তির নাম সুপারিশ করবে। এ কমিটি প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে সুপারিশ দেয়ার উদ্দেশ্যে সভায় উপস্থিত সদস্যদের সংখ্যাগরিষ্ঠের সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে প্রতিটি শূন্যপদের বিপরীতে দুই জন ব্যক্তির নাম সুপারিশ করবে। এর ভিত্তিতেই সিইসি ও ইসি নিয়োগের প্রস্তাবনা তৈরি হচ্ছে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে