Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর, ২০২০ , ১৬ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 2.6/5 (17 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-০৪-২০১২

আওয়ামী লীগকে রাজপথে থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

শামীম খান


আওয়ামী লীগকে রাজপথে থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের শাসনামলের অত্যাচার, দুর্নীতি, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদসহ তাদের অপকর্মের চিত্র জণগণের সামনে তুলে ধরার জন্য দলের নেতাদের নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সেই সঙ্গে তিনি বিরোধী দলের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা কঠোরভাবে দমন করা কথা বলেছেন। তিনি বিরোধী দলের আন্দোলন মোকাবেলায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের রাজপথে থেকে মাঠ দখলে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারের সফলতার চিত্রও তিনি তুলে ধরতে বলেছেন।

শনিবার আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহি সংসদের সভায় তিনি এ নির্দেশ দিয়েছেন বলে সুত্র জানায়।

সূত্র আরও জানায়, সভায় শেখ হাসিনা বলেছেন, খালেদা জিয়ার সময় দেশে সন্ত্রাস, বোমা হামলা জঙ্গিবাদের যে অভয়ারণ্য সৃষ্টি হয়েছিল সেটা জনগণকে আবার স্মরণ করিয়ে দিতে হবে। জেলা, উপজেলা, ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গিয়ে তারা যে অপকর্ম করেছে মানুষের মাঝে তাদের অত্যাচার নির্যাতনের চিত্র ভালোভাবে তুলে ধরতে হবে।

বিএনপি জামায়াতের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা কোনোভাবেই সহ্য করা হবে না বলে শেখ হাসিনা সভায় জানান। তাদের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা কঠোরভাবে দমন করা হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেছেন।

বিএনপির আন্দোলন রাজপথে মোকাবেলা করার জন্য আওয়ামী লীগসহ দলের সকল সহযোগী সংগঠনকে রাজপথের থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। এ জন্য তিনি ফেব্রুয়ারি ও মার্চ মাসব্যাপী ধারাবাহিক কর্মসূচী পালনের মাধ্যমে রাজপথ দখলে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

আন্দোলনের নামে বিরোধী দল দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে প্রশাসনিক ও আইনগতভাবে ব্যবস্থা নেয়ার হবে বলেও তিনি সভায় জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন জনগণের সম্পদ রক্ষা করা নিরাপত্তা দেয়া সরকারের দায়িত্ব। জনগণের ক্ষতি করার চেষ্টা করা হলে সেটা প্রতিরোধ করা হবে।

সৃত্র জানায়, দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ সভায় আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামর’ল ইসলামের বক্তব্যের প্রসঙ্গটি তুলে ধরেন। তবে এ ব্যাপারে শেখ হাসিনা কর্মসূচির ব্যাপারে সরাসরি কিছু না করলেও মাঠ দখলে রাখার কথা বলেছেন।

উল্লেখ্য, কামরুল ইসলাম ১২ মার্চ বিএনপির কর্মসূচির দিন তাদের ঢাকায় ঢুকতে দেয়া হবে না বলে মন্তব্য করেছিলেন।
   
সভায় প্রধানমন্ত্রী আরও বলেছেন, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের আমলে সন্ত্রাস, বোমা হামলা জঙ্গিবাদ দমন হয়েছে। দুনীতির দুর্নাম ঘুচেছে। এই অর্জনগুলো মানুষের মাঝে তুলে ধরতে হবে।

দলের সভাপতি মন্ডলির শুন্য পদে আকতারুজ্জামান বাবুকে নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান। সেই সঙ্গে তাকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেয়ার জন্য নির্দেশ দেন।

আকতারুজ্জামান বাবু চট্রগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি।

উল্লেখ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলির প্রবীন সদস্য আতাউর রহমান খান কায়সারের মৃত্যুতে সভাপতিমন্ডলির একটি পদ শুন্য হয়।
 
সভায় ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণ, ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন এবং ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।

৭ মার্চ গণর‌্যালি আয়োজন করার সিদ্ধান্ত হয়। সোহরাওয়ার্দি উদ্যান থেকে ধানমন্ডির ৩২ নম্বর পর্যন্ত এ র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে