Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ , ১২ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (48 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-১১-২০১১

নগরায়ণ বাড়াচ্ছে মানসিক রোগের ঝুঁকি

নগরায়ণ বাড়াচ্ছে মানসিক রোগের ঝুঁকি

নগরায়ণ দ্রুত বেড়ে চলায় দেশের মানুষের মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। বিশেষ করে, শিশুদের ওপর এর প্রভাব উদ্বেগজনক বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের গত বছরের এক জরিপের ফলাফলে দেখা গেছে, শহরের ১৪ দশমিক ৩ শতাংশ শিশু মানসিক সমস্যায় ভুগছে।
দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও অত্যন্ত দ্রুতগতিতে নগরায়ণ হচ্ছে। শহরে বসবাসকারী জনসংখ্যা বেড়েই চলেছে। নগর পরিকল্পনাবিদ অধ্যাপক নজরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, বছরে ঢাকায় চার থেকে পাঁচ লাখ নতুন মানুষ যুক্ত হচ্ছে।
বিশেষজ্ঞরা বলেন, নগরায়ণ মানুষের জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনে। কিন্তু এর নেতিবাচক প্রভাবও রয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার স্বাস্থ্যসংক্রান্ত সামাজিক বিষয়গুলো দেখার কমিশন বলছে (২০০৮ সাল), শহরে টিকে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় অর্থের সংকট, জীবনযাপনের উচ্চ ব্যয়, প্রতিকূল জীবনযাপন পদ্ধতি ও যাতায়াতব্যবস্থা ইত্যাদি মানুষের মনের ওপর অনবরত চাপ সৃষ্টি করে।
চাপ সামলাতে পারছে না শিশুরা: রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকার বাসিন্দা এক চিকিৎসক দম্পতির একমাত্র শিশুসন্তান প্রতিদিন সকাল সাতটায় স্কুলে যায়, ফেরে সন্ধ্যা সাতটায়। এত দেরির কারণ, সে উত্তরার একটি স্কুলে পড়ে। অভিভাবকেরা ওই স্কুলটি ছাড়া সন্তানকে পড়াবেন না। প্রতিটি পরীক্ষায় প্রথম হওয়ার চাপও আছে শিশুটির ওপর। চতুর্থ শ্রেণীতে পড়ার সময় তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ব্যথা, অজ্ঞান হয়ে যাওয়া, খিঁচুনি ইত্যাদি উপসর্গ দেখা দেয়। পরীক্ষা করে জানা যায়, সে মানসিক রোগের শিকার।
মনোরোগ চিকিৎসক আহমেদ হেলাল প্রথম আলোকে বলেন, ?শহরাঞ্চলের স্কুলে লেখাপড়ার চাপ অনেক বেশি। অনেক শিশু অতিরিক্ত টিভি দেখে, কিংবা ভিডিও গেমসে আসক্ত। তাদের বিকাশ বাধা পাচ্ছে উন্মুক্ত মাঠে খেলাধুলার সুযোগ না থাকায়।?
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক শাহনূর হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, নগরজীবনের তীব্র প্রতিযোগিতায় হেরে যাওয়া অনেকেই পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে পারে না। তাদের মধ্যে হতাশা তৈরি হয়। সামাজিক সম্পর্ক গড়তে ব্যর্থ হয়। অনেকে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে।
ইন্ডিয়ান জার্নাল অব সাইকিয়াট্রি দক্ষিণ এশীয় দেশগুলোয় মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর নগরায়ণের প্রভাবসংক্রান্ত এক রচনায় উল্লেখ করে, নগরায়ণের চাপে মানুষ গুরুতর মানসিক সমস্যা, বিষণ্নতা, সমাজবিরোধী মনোভাব, মাদকাসক্তি ইত্যাদি রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।
জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মতো নেতৃত্বস্থানীয় প্রতিষ্ঠানের চিকিৎসকেরা বলছেন, স্কুলপড়ুয়া শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সের মানুষ নানা মানসিক রোগে ভুগছে। তবে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে শিশু ও নারীরা।
গতকাল রোববার জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা নিতে আসা এক কিশোরী চিকিৎসককে তার ক্ষতবিক্ষত হাত দেখায়। মেয়েটি শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে ও পরে প্রত্যাখ্যাত হয়। সে ব্লেড দিয়ে নিজের হাত কেটে রক্ত না ঝরানো পর্যন্ত শান্ত হতে পারে না।
এ ছাড়া ধনী-দরিদ্রের বৈষম্যও শিশুর ওপর প্রভাব ফেলে বলে মন্তব্য করেছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা। ইউএন হ্যাবিটেটের ?ডাজ এনভায়রনমেন্ট এফেক্ট ইমোশনাল ওয়েলবিং? শীর্ষক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সামাজিক বৈষম্য শিশুদের মধ্যে আচরণগত সমস্যা তৈরি করে।
শহুরে নারীর আত্মহত্যার প্রবণতা বেশি: বিশ্বের প্রায় সব দেশে চল্লিশোর্ধ্ব পুরুষের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা বেশি হলেও বাংলাদেশে ২৯ বছরের নিচের নারীরা বেশি আত্মহত্যা করছেন। জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক মোহিত কামাল বলেন, আইসিডিডিআরবির এক গবেষণায় দেখা গেছে, গ্রামাঞ্চলে শতকরা ১১ জন নারী আত্মহত্যার কথা ভাবেন এবং নয়জন আত্মহত্যা করেন। অন্যদিকে শহরে শতকরা ১৪ জন আত্মহত্যার কথা ভাবেন। এদের মধ্যে শতকরা ২৬ জন আত্মহত্যা করেন।

শরীর চর্চা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে